Please Enable JavaScript
TrickBuzz
Battle Rifle

এসাল্ট রাইফেল আর ব্যাটেল রাইফেলের মধ্যে পার্থক্য কি

আমাদের সাইটের সম্মানিত ভিসিটরগন প্রায়ই আমাদের একটি প্রশ্ন জিজ্ঞাসা করেন “এসাল্ট রাইফেল আর ব্যাটেল রাইফেলের মধ্যে পার্থক্য কি”

প্রথমেই একটি লাইন দিয়ে শুরু করা যাক “সকল ব্যাটেল রাইফেলই এসল্ট রাইফেল কিন্তু সকল এসল্ট রাইফেল ব্যাটেল রাইফেল নয়”। মূলত এসাল্ট রাইফেলের একটি সাবগ্রুপ হলো এই ব্যাটেল রাইফেল।

এসাল্ট রাইফেল ও ব্যাটেল রাইফেলের মধ্যকার পার্থক্য

১. আগেকার দিনে এসাল্ট রাইফেল বলে কোন ক্যাটাগরি ছিলো না। এজন্য এগুলো ব্যাটেল রাইফেল নামে বেশি পরিচিত ছিলো। এগুলোর ক্যালিবার ছিলো তুলনামূলক ভারী (বর্তমান এসাল্ট রাইফেলের চেয়ে) আর রেঞ্জ ও এক্যুরেসীও বেশি হতো। এসব রাইফেলের ভেদন ক্ষমতা (পেনিট্রেশন পাওয়ার) অনেক বেশি ছিলো। অর্থাৎ এগুলো সমসাময়িক এসল্ট রাইফেলের চেয়ে বেশি পাওয়ারফুল ছিলো এবং এখনো পাওয়ারফুল।

Ak47 এসাল্ট রাইফেল
Ak47 এসাল্ট রাইফেল

২. উদাহরণস্বরূপ- এসল্ট রাইফেলে (BD-08) ক্যালিবার হিসাবে 7.62x39mm বা 7.62x45mm বুলেট ব্যবহার করা হয়। ফলে এর রেঞ্জ, এক্যুরেসী ও পেনিট্রেশন ক্ষমতা তুলনামূলক কম। এসব রাইফেলের সর্বোচ্চ রেঞ্জ ৪০০-৫০০ মিটার, আর লং রেঞ্জে এক্যুরেসীতে সমস্যা হয় আর ফুল পেনিট্রেশন পাওয়া যায় না।

তবে ব্যাটেল রাইফেলে (G3A3) ক্যালিবার হিসাবে 7.62x51mm এর হেভি ক্যালিবার ইউজ করা হয়। ফলে এর এক্যুরেসী, রেঞ্জ ও পেনিট্রেশন ক্ষমতাও বেশি। এসব রাইফেলের রেঞ্জ ৮০০-১২০০ মিটার হয়, দুর্দান্ত এক্যুরেসী (স্নাইপার হিসাবেও ইউজ করা যায়) ও হাই পেনিট্রেশন পাওয়ার সম্পন্ন।

৩. ব্যাটেল রাইফেলে গান ব্যারেল কিছুটা বড় হয়। এজন্য ব্যাটেল রাইফেলের রেঞ্জ বেশি। অন্যদিকে এসল্ট রাইফেলে ছোট গান ব্যারেল থাকে। এসল্ট রাইফেল শর্ট বা ইন্টারমিডিয়েট রেঞ্জে শত্রুকে আঘাত/হত্যা করতে ব্যবহার করা হলেও ব্যাটেল রাইফেল ইন্টারমিডিয়েট রেঞ্জ ও লং রেঞ্জ দুই ক্ষেত্রেই ব্যবহার করা যায়।

এসাল্ট রাইফেল আর ব্যাটেল রাইফেলের মধ্যে পার্থক্য কি
Battle Rifle

৪. এসল্ট রাইফেলে ফুল অটোমেটিক বা ব্রাস্ট ফায়ার (অনেকে ব্রাশ ফায়ার বলে, আসল উচ্চারণ ব্রাস্ট ফায়ার) মেকানিজম ইউজ করা হয়। তবে ব্যাটেল রাইফেল “সেমি-অটো” মেকানিজম ইউজ করে থাকে। ফলে ব্রাস্ট ফায়ার (ফুল অটো) ফায়ারিং করা যায় না।

৫. ব্যাটেল রাইফেলের ম্যাগজিন/বুলেট ক্যাপাবিলিটি কম। এসব রাইফেল ২০-২২ রাউন্ড ম্যাগজিন বহন করে। অন্যদিকে এসল্ট রাইফেলের ম্যাগজিন ৩০ রাউন্ড বক্স ম্যাগাজিন, ৭৫-১০০ রাউন্ডের ড্রাম টাইপ ম্যাগাজিন বহন করতে সক্ষম (Ak-47)।

বর্তমান সময়েও ব্যাটেল রাইফেল বা তুলনামূলক হাই-ক্যালিবারের রাইফেল থাকে। এগুলোকে মার্ক্সম্যান রাইফেলও বলা হয়ে থাকে।বাংলাদেশ সেনাবাহিনী এসল্ট রাইফেল হিসাবে BD-08 Type-56 ব্যবহার করে। আর ব্যাটেল রাইফেল হিসাবে জার্মানির G3A3 ব্যবহার করতো।

আমাদের সাইটের আর্টিকেলগুলো ভালো লাগলে অবশ্যই আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করতে ভুলবেন না। লেটেস্ট আর্টিকেলগুলো ইমেইলে পেতে আমাদের নিউজলেটারে সাবস্ক্রাইব করুন।

© DTB

RONiB

This author may not interested to share anything with others!

1 comment

Most popular

Most discussed